Make your own free website on Tripod.com

নববর্ষের বাণী

 

 

 

নিজের হূদয় সকলের হূদয়ের ঢালিয়া দাও,-তাপদগ্ধ জীব আপন জন চিনিয়া, আপন জনকে জানিয়া, আপন জনের প্রাণের স্পর্শ পাইয়া দুঃখ ভুলুক, শান্তি লাভ করুক | সকলের বেদনা নিজের অন্তরে অনুভব কর, - নিরাশ্রয়েরা উল্লসিত হউক, আশ্বস্ত হউক, আশ্রয় পাইবার আত্ম-প্রসাদে ধন্য হউক|

 

 

কাজ তোমাকে ডাকিতেছে| তুমি তোমার যোগ্যতা ও মহত্ত্বের অহমিকা নিয়া ঘরে বসিয়া থাকিলে ত' চলিবে না| অহঙ্কার ছাড়, আলস্যও ছাড়| বিনীত বিনম্র মন লইয়া কাজের মত কাজে হাত দাও| সেবার বুদ্ধি লইয়া কর্ম্ম-রণাঙ্গনে আত্মবলি দাও|

 

তুমি আমার সন্তান, সমস্ত পৃথিবীর সমস্ত দেশই তোমার স্বদেশ| সকল দেশের সকল নাগরিকই তোমার স্বদেশবাসী| সকল ধর্ম্মের সকল সমাজের লোকই তোমার পরমাত্মীয়| সকলকেই তুমি সমান ভালবাসিবে, সকলের প্রয়োজনেই অবহেলে প্রাণ বিসর্জ্জন করিবে|

 

তোমার উন্নত আদর্শ, তোমার নিঙ্কলঙ্ক কর্ম্মধারা, তোমার অনিন্দনিয় লক্ষ, তোমার অনবদ্য সংগঠন প্রণালী যেন তোমার ধ্যনের জগতে রম্যস্হান অধিকার করিয়া চিরস্হায়ী মহিমায় বিরাজমান থাকে,- কেবল হুজুগেই যেন পথ চলিও না| নিজের ধ্যানকে গভীর কর, অপর সকলকেও এই ধ্যানে মজাও| নিজে কাজে লাগ, অপর প্রত্যেককে কাজে লাগিতে বাধ্য কর| বিচীত্র কর্ম্ম-কোলাহলের মধ্য দিয়া তোমার বিশ্বত্রাণ ঐকবাদন সুরু হউক|

 

                                                                                                                          পরের পাতা